Home / উন্মুক্ত পাতা / স্বর্ণগ্রামের স্বপ্ন পূরণঃ মুহাম্মদ লুৎফুর রহমান তুষার

স্বর্ণগ্রামের স্বপ্ন পূরণঃ মুহাম্মদ লুৎফুর রহমান তুষার

মুহাম্মদ লুৎফুর রহমান তুষার


যে গ্রামের মাটিতে স্বর্ণ ফলে সে গ্রামকে স্বর্ণগ্রাম বলা কি   খুব বেশী বাড়াবাড়ি হয়ে যাবে। প্রিয় চুনতি আমাদের গর্ব, ইতিহাস, ঐতিহ্যের এক অসাধারণ সূতিকাগার। আল্লাহর অপার রহমত ছড়িয়ে আছে এই গ্রামের প্রতিটি পরতে পরতে। আপন ভাইয়ের মত কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে এখানে সব ধরণের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান পাশাপাশি অবস্থিত। চুনতিতে বেড়াতে আসা পর্যটকদের চোখ আটকে যায় এতগুলো প্রতিষ্ঠানের এত কাছাকাছি অবস্থান দেখে। আসলে এটা শুধু চুনতীতেই সম্ভব। এখানে দীর্ঘ দুই শতাব্দীর ঐতিহ্য বুকে ধারণ করে সগর্বে দাড়িয়ে আছে জাতীয় পর্যায়ে স্বর্ণপদক প্রাপ্ত দ্বীনি শিক্ষা প্রতিষ্ঠান চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদরাসা। এ মাদরাসা থেকে অধ্যয়ন করে অনেক ছাত্র আজ রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে নানা গুরুত্বপূর্ণ পদে অধিষ্ঠিত। এ প্রতিষ্ঠানটি উচ্চ নৈতিকতা ও মানবিকতা সম্পন্ন সুনাগরিক ও জনসম্পদ তৈরীতে ১৮১০ সাল থেকে গুরু দায়িত্ব পালন করে আসছে। এ প্রতিষ্ঠানটির সুনাম শুধু বাংলাদেশ নয় অনেক আগেই আন্তর্জাতিক অঙ্গনে ছড়িয়ে গেছে। এ প্রতিষ্ঠানের ছাত্ররা মিশর আল আজহার বিশ্ববিদ্যালয়সহ মধ্যপ্রাচ্যের অনেক নামকরা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষাবৃত্তি পেয়ে অধ্যয়নের সূযোগ পায়। অবস্থানগত দিক, পড়াশোনার পরিবেশ ও পড়ালেখার মান বিবেচনায় হাকিমিয়া কানন যেন অনেক আগে থেকেই অঘোষিত বিশ্ববিদ্যালয়। আজ চুনতিবাসীর জন্য এক ঐতিহাসিক ও পরম গৌরবের দিন। আমাদের গর্বের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আজ সত্যিই বিশ্ববিদ্যালয়ের মানে উন্নীত হল। গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কর্তৃক নবপ্রতিষ্ঠিত ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে আজ সারা বাংলাদেশ থেকে বাছাইকৃত ২১ টি মাদরাসাকে অনার্স কোর্সে পাঠদানের অনুমতি প্রদান করা হয়। যার মধ্যে চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদরাসা একটি। কক্সবাজার থেকে পটিয়া পর্যন্ত বিশাল এই এলাকার মাদরাসা ছাত্ররা এ বছর থেকে চুনতি হাকিমিয়া কামিল মাদরাসায় আল- হাদীস এ্যান্ড ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগে অনার্স পড়ার সূযোগ পাবে। আজকের এই ঐতিহাসিক সফলতা অর্জনের জন্য পরম করুণাময়ের দরবারে লাখো কোটি শুকরিয়া আদায় করছি। শ্রদ্ধাভরে স্বরণ করছি পরলোকগমণ করা সে সকল মহাপুরুষদের যারা মাদরাসা প্রতিষ্ঠায় অসামান্য অবদান ও অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছেন। বিদেহী আত্নার মাগফিরাত কামনা করছি সে সকল আসাতিজা কিরামের যারা তাদের সারাটা জীবন কাটিয়ে দিয়েছিলেন এই মাদরাসার খেদমতে। কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি গণপজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার প্রতি, এছাড়াও চুনতিরত্ন প্রধানমন্ত্রীর সামরিক সচিব মেজর জেনারেল মিয়া মুহাম্মদ জয়নুল আবেদীন, মাননীয় সংসদ সদস্য প্রফেসর ড.আবু রেজা মুহাম্মদ নেজামুদ্দীন নদভী, প্রফেসর ড. মুহাম্মদ আহসান উল্লাহ( মাননীয় উপাচার্য- ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয় ঢাকা) ও প্রফেসর ড. মোহাম্মদ ইলিয়াছ ছিদ্দিকী ( সম্মানিত মাদরাসা পরিদর্শক- ইসলামি আরবি বিশ্ববিদ্যালয়, ঢাকা) এর কাছে বিশেষ কৃতজ্ঞতা জানাচ্ছি। মহান আল্লাহর  কাছে এই মহতী উদ্যোগে সহযোগী সকলের উত্তম প্রতিদান কামনা করছি। প্রিয় প্রতিষ্ঠানের উত্তরোত্তর সাফল্য ও সমৃদ্ধি কামনা করে এখানেই ইতি টানছি।

About Tamzid20

Check Also

আজ লেখক আহমদ ছফার জন্মদিনঃ হিযবুল্লাহ রায়হান

১৯৪৩ সালের ৩০শে জুন চট্টগ্রামের গাছবাড়িয়ায় প্রত্যন্ত এক গ্রামে ছেলেটির জন্ম। কাঠমিস্ত্রি ও কৃষক বাবার …

লোহাগাড়া উপজেলায় ইটভাটা স্থাপনে মানা হচ্ছে না নিয়ম 

বিশ্ব পরিবেশ দিবসে পরিবেশ দূষণ রোধকল্পে লোহাগাড়া উপজেলার চরম্বা ইউনিয়নের নোয়ারবিলা এলাকার মানুষের পক্ষে লিখছেন- …

সংস্কৃতির আত্মানুসন্ধানে ১লা বৈশাখের অগ্রযাত্রা

নজরুল ইসলাম তোফাঃ বাংলা পঞ্জিকার ১ম মাস বৈশাখের ১ তারিখেই হয় ‘পয়লা বৈশাখ’ বা ‘পহেলা …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *