Home / আলোকিত ব্যক্তিত্ব / লোহাগাড়ার লিজেন্ড মিঃ মাসুদ খানের জীবনী ও খান পরিবার

লোহাগাড়ার লিজেন্ড মিঃ মাসুদ খানের জীবনী ও খান পরিবার

চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়নে ঐতিহ্যবাহী খান পরিবারে ১৯৫৪ সালের ৩০শে জুলাই মিঃ মাসুদ খান জন্মগ্রহণ করেন। মিঃ মাসুদ খানের পিতা শ্রদ্ধেয় জনাব ইসলাম খান সাহেব(খান সাহেব নামে পরিচিত) চুনতির একজন বিখ্যাত সমাজসেবক। তিনি এবং তাঁর পরিবারবর্গ খান ফাউন্ডেশনের মাধ্যমে এলাকায় বিভিন্ন সামাজসেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। খান ফাউন্ডেশন প্রতিবছর এলাকার অভাবগ্রস্ত এবং পীড়িত মানুষদেরকে আর্থিক সহযোগিতা, গবাদিপশু পালন, বাড়ি নির্মান, একটি দাতব্য চিকিৎসালয় পরিচালনা, অনাথাশ্রম, স্কুল, কলেজ, হাসপাতাল, মসজিদে দান করে থাকেন।

মিঃ মাসুদ খানের সহধর্মীনি মিসেস সুরাইয়া জান্নাত বর্তমানে বিশ্ব ব্যাংকের লিড ফাইন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিষ্ট হিসেবে কর্মরত আছেন। তিনি বাংলাদেশের প্রথম মহিলা চার্টার্ড একাউন্টেন্ট। মিসেস সুরাইয়া জান্নাতও শ্বশুরালয় চুনতি এবং নিজ এলাকা চন্দনাইশে বিভিন্ন সামাজিক কাজে যুক্ত আছেন।

মি. মাসুদ খানের বড় ভাই মি. আসাদ খান বর্তমানে প্রাইম ফাইন্যান্স এন্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেড এর ম্যানেজিং ডাইরেক্টরের গুরুদায়িত্ব পালন করছেন। তিনিও নিজ গ্রাম চুনতিতে বিভিন্ন সমাজসেবামূলক কাজ করে যাচ্ছেন। এবং তিনি বর্তমানে চুনতিবাসীর প্রাণের সংগঠন চুনতি সমিতির সভাপতির দায়িত্ব পালন করছেন। মি. মাসুদ খানের বোনও কলকাতা থেকে ডক্টরাল ডিগ্রী এবং মাস্টার্স শেষ করেছেন।

তিনি বর্তমানে দেশের অন্যতম সিমেন্ট কোম্পানি ক্রাউন সিমেন্ট গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা(সিইও) হিসেবে কর্মরত আছেন। ক্রাউন সিমেন্ট দেশের পুঁজিবাজারের তালিকাভুক্ত একটি কোম্পানি।

মিঃ মাসুদ খান দীর্ঘ ১৭ বছর দেশের বিখ্যাত লাফার্জ সুরমা সিমেন্ট(এলএসসি) লিমিটেড এর চীফ ফাইন্যান্সিয়াল অফিসারসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করেন। এলএসসি একটি বাংলাদেশ ও ইন্ডিয়া সীমান্তে অনন্য যৌথ উদ্যোগ প্রকল্প এবং Lafarge of France and Cementos Molins of Spain কর্তৃক স্পন্সরকৃত একটি প্রতিষ্ঠান। গত ৩৭ বছরের কর্ম অভিজ্ঞতার সাথে দেশের বিভিন্ন মাল্টিন্যাশনাল কোম্পানিগুলোতে তিনি পাকা পেশাদারিত্বের ভূমিকা পালন করে আসছেন। তিনি কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিনে St Xaviers’ College থেকে ব্যাচেলর অব কমার্স(সম্মান) সম্পন্ন করেন। তারপর তিনি ১৯৭৭ সালে “ইন্ডিয়ান ইন্সটিটিউট চার্টার্ড একাউন্টেন্সি পরীক্ষায়” পুরো ভারতে সিলভার পদকপ্রাপ্ত হন এবং Chartered ও Cost and Management Accountant হিসেবে যোগ্যতা এবং শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেন। এরপর তিনি ব্রিটিশ আমেরিকা টোব্যাকো তে দীর্ঘ ২০ বছর দেশে-বিদেশে চাকরি করেন। এরপর ১৯৯৯ সালে তিনি লাফার্জ বাংলাদেশ এ ফাইন্যান্সিয়াল ডাইরেক্টর হিসেবে যোগ দেন। তিনি ফাইন্যান্স এর বিভিন্ন ক্ষেত্রে কাজ করেছেন এবং ব্যবসার উন্নতির জন্য ম্যানেজমেন্ট একাউন্ট্যান্ট, প্লান্ট কন্ট্রোলার, ফাইন্যান্স চীফ ইন BAT লাইবেরিয়া, চীফ একাউন্ট্যান্ট, অডিট ম্যানেজার এবং এমআরপিআইআই প্রোগ্রাম ম্যানেজার হিসেবে কাজ করেন। তিনি Glaxo Smith Kline Bangladesh, Marico Bangladesh, Berger Paints Bangladesh and Viyellatex Bangladesh Ltd এর একজন স্বাধীন পরিচালক। এছাড়াও তিনি বিগত ৩৭ বছর ধরে Institute of Chartered Accountants of Bangladesh এর লেকচারার হিসেবে ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন, বিজনেস স্ট্র্যাটেজি, ফাইন্যান্সিয়াল ম্যানেজমেন্ট এবং বিজনেস এনালাইসিস বিষয়ে সকল লেভেলে পাঠদান করে আসছেন।

About Tamzid20

Check Also

লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান সহকারী অধ্যাপক মহিউদ্দিন মাহি

সহকারী অধ্যাপক মহিউদ্দিন মাহি চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলার চুনতি ইউনিয়নের নারিশ্চা গ্রামে ১৯৮৯ সালের ১লা মার্চ …

মাওলানা আব্দুন নূর সিদ্দিকী চিশতী (রহ)’র জীবন চরিতঃ মোহাম্মদ ইমাদ উদ্দীন

বাংলাদেশের প্রথম শ্রেণীর হাদীস বিশারদ হিসেবে যে সকল ক্ষণজন্মা মহান ব্যক্তিবর্গের নাম গণনা করা হয় …

লোহাগাড়ার কৃতি সন্তান ঢাবি প্রফেসর ড. নিয়াজ আহমেদ খানের জীবনী

সংক্ষিপ্ত পরিচিতিঃ ড. নিয়াজ আহমেদ খান ১৯৬৬ সালের ২৮ সেপ্টেম্বর চট্টগ্রাম জেলার লোহাগাড়া থানার চুনতি …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *